Ads

 ড্রিম্প্লয় হচ্ছে বাংলাদেশের অনলাইন ইনকাম ভিত্তিক বেস্ট পপুলার ওয়েবসাইট যেখান থেকে যে কেউ মোবাইল কম্পিউটার ল্যাপটপ ব্যবহার করে ইনকাম করতে পারবেন ঘরে বসে । ড্রিম্প্লয় ওয়েবসাইটের যাত্রা শুরু হয় 2017 সালের শেষের দিকে ড্রিম্প্লয় অঙ্গীকার হচ্ছে ঘরে ঘরে ফ্রিল্যান্সার তৈরি করা ড্রিম্প্লয় কর্তৃপক্ষ বলেছেন সর্বমোট তারা 75 রকমের কাজ নিয়ে হাজির হবেন আস্তে আস্তে করে একের পর এক বাংলাদেশ জনগণের মাজে । 

ড্রিম্প্লয় কর্তৃপক্ষ বলেছেন ড্রিম্প্লয় থেকে মাসে 500 ডলার থেকে শুরু করে 2500 ডলার পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন প্রতিটা ফ্রিল্যান্সার । আজকে আমরা জানার চেষ্টা করব কিভাবে এই অনলাইন ইনকাম ওয়েবসাইটটিতে কাজ করতে হয় বা কিভাবে পেমেন্ট নিতে হয় ।


Dreamploy থেকে সহজে টাকা ইনকাম করার উপায়



ড্রিম্প্লয় কি ধরনের কম্পানি ?


আগেই বলেছি ড্রিম্প্লয় প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে ফ্রিল্যান্সার তৈরি করা এবং তাদের আরেকটি বড় ধরনের কাজ হচ্ছে এডভেটাস কোম্পানি হিসেবে কাজ করে যাওয়া । ড্রিম্প্লয় হতে ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিং কাজ করার পাশাপাশি এখানে যে কোন প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্যের প্রচার এর জন্য প্রোডাক্ট গুলোর এড দেওয়ার সুযোগ পেয়ে থাকেন এবং ড্রিম্প্লয় সেই এড গুলো তাদের গ্রাহকদের মাঝে ছড়িয়ে দেন এর থেকে যা ইনকাম হয় এমপ্লয় কম্পানি কিছু রেখে দেন এবং কিছু ভিজিটরদের দিয়ে দেন । ড্রিম্প্লয় হচ্ছে কোম্পানির মূল নাম এছাড়াও আরো অনেকগলো তাদের ইনকাম ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো থেকে নানা রকম ভাবে কাজ করে ইনকাম করা যাচ্ছে এর বিতর ড্রিম্প্লয় অ্যাপ্লিকেশনটি হচ্ছে অন্যতম । 


ড্রিম্প্লয় অ্যাপ থেকে কিভাবে ইনকাম করবো ?


ড্রিম্প্লয় অ্যাপ থেকে অনেক রকম ভাবে ইনকাম করা যায় তার মাঝে সবচেয়ে জনপ্রিয় হচ্ছে এড দেখে বা ভিডিও দেখে ইনকাম করা । আরো অনেকে জেনে খুশি হবেন ড্রিম্প্লয়র অন্য অন্য সেক্টরে যে ইনকাম গুলো হয় সেগুলো মাস শেষে ড্রিম্প্লয় অ্যাপ এর ভিতরে এসে জমা হতে থাকে । ড্রিম্প্লয় অ্যাপটি ডাউনলোড করার জন্য গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে ড্রিম্প্লয় লিখে সার্চ করলে সবার প্রথমে চলে আসে অ্যাপ্লিকেশনটি


ড্রিম্প্লয় ই কমার্স থেকে ইনকাম করার উপায়


ড্রিম্প্লয় হতে আরেকটি জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে ইনকাম করার অর্থাৎ পণ্য বা প্রোডাক্ট সেল করে ইনকাম করা যেরকমটা আলীএক্সপ্রেস বা অ্যামাজন থেকে সবাই করে থাকে ঠিক ওরকমই ডিমপ্রলয় ইউনেস্টেক নামে ওয়েবসাইটটি থেকে ই-কমার্স কাজ করে বা ডিজিটাল মার্কেটিং করে ইনকাম করা যায় । পাশাপাশি এই ওয়েবসাইটটিতে নিজের পণ্য থাকলে সেগুলো বিক্রি উপার্জন করার ব্যবস্থা রয়েছে ।


ড্রিম্প্লয় সিপিএ মার্কেটিং করে আয়


ড্রিম্প্লয় সম্প্রতি নতুন আরেকটি জনপ্রিয় মাধ্যম তারা চালু করেছে সেটি হল সিপিএ মার্কেটিং থেকে আয়ে । এখন সারা বিশ্বে ডিজিটাল মার্কেটিং এর পাশাপাশি সিপিএ মার্কেটিং করে বেশ ভালো টাকা উপার্জন করছে তাই ড্রিম্প্লয় বাংলাদেশি মানুষদের জন্য সুবর্ণ সুযোগ নিয়ে এসেছে । আরো যে সুবিধা পাচ্ছেন বাংলাদেশি মানুষরা এখান থেকে বিকাশ নগদ এর মাধ্যমে পেমেন্ট করে যে কেউ গুগোল প্লেকার্ড অ্যামাজন কার্ড পেপাল কার্ড সহ আরো নানা প্রয়োজনীয় সামগ্রী গুলো  স্বল্পমূল্যে কিনতে পারছে ।


ড্রিম্প্লয় থেকে নিউজ পড়ে ইনকাম


সংবাদ পেতে বা সংবাদ দেখতে কে না চায় প্রত্যেকটা মানুষই প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন সংবাদ এর পিছনে ছুটে থাকেন অর্থাৎ যার যেই ধরনের সংবাদ খবর রাখতে পছন্দ সে সেই ধরনের খবর ভালোবাসেন সেই নিউজ পড়ে যদি ইনকাম হয় ব্যাপারটা কেমন হয় ? জি বন্ধুরা ড্রিম্প্লয় আরেকটি সাইট হচ্ছে অরবিট টাইমস নামে এই ওয়েবসাইটটি থেকে নিউজ পড়ে বা নিউজ এর ভিতরে লাইক কমেন্ট শেয়ার করে ইনকাম করা যায় ।


ড্রিম্প্লয় এতে কি যে কোন দেশ থেকে কাজ করা যায় ?


ড্রিম্প্লয় বাংলাদেশ থেকে পরিচালিত হলেও এটি একটি ইন্টারন্যাশনাল মানের অনলাইন ইনকাম সাইট এখানে বিশ্বের যে কোন দেশ থেকে অ্যাকাউন্ট খুলে কাজ করা যায় ।


ফ্রী তে কাজ করার কি কোন সুযোগ আছে ?


জি ড্রিম্প্লয়তে কিছু কিছু কাজ রয়েছে যেগুলো ফ্রিতে একাউন্ট খুলে ফ্রিতে কাজ করা যায় । তবে বেশিরভাগ কাজগুলো করতে গেলে অবশ্যই আইডি একটিভ করে নিতে হয় বাংলাদেশ থেকে আইডি একটিভ করার চার্জ হচ্ছে 500 টাকা দেশের বাইরে থেকে আইডি অ্যাকটিভ করা চার্জ হচ্ছে 10 ডলার অর্থাৎ 800 টাকা ।


ড্রিম্প্লয় কি সরকারের পার্মিশন পেয়েছে ?


ড্রিম্প্লয় যখন 2017 সালের শেষের দিকে শুরু করেন তখনই তারা বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত লাইসেন্স নিয়ে তারা মাঠে নামেন ।


ড্রিম্প্লয় থেকে পেমেন্ট নেওয়ার মাধ্যম গুলো কি কি ? 


বাংলাদেশের ভিতরে ড্রিম্প্লয় থেকে পেমেন্ট নিতে সরাসরি বিকাশ নগদ এর মাধ্যমেই যথেষ্ট সাথে ব্যাংক টেনাসফার রয়েছে এবং বাংলাদেশ বাইরে থেকে রয়েছে পেপাল পেওনিয়ার পেটিএম মাধ্যমে পেমেন্ট নসু ব্যবস্থা ।


একাউন্ট খুলব কিভাবে ?


ডিম্পল হতে অ্যাকাউন্ট খোলা খুবই সহজ তবে ড্রিম্প্লয় একাউন্ট খুলতে হলে অবশ্যই একটি রেফার কোড কিংবা স্পন্সর আইডি দরকার হবে কারণ এটি ছাড়া একাউন্ট খোলা যাবে না । প্রথমে প্লে স্টোর থেকে ড্রিম্প্লয় অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিতে হবে । এরপর একাউন্ট খোলার জন্য আইডি কার্ড অনুযায়ী নাম একটি ইমেইল একটি মোবাইল নাম্বার প্রয়োজন হবে এগুলো যদি আপনার কাছে সংরক্ষিত থাকে তাহলেই কেবল ড্রিম্প্লয় অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে পারবেন সম্পূর্ণ ফ্রিতে ।

2 মন্তব্যসমূহ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন

Ads

Ads