Ads

জা লাইফস্টাইল হচ্ছে বর্তমানের অনলাইন ইনকামের ক্ষেত্রে সেরা একটি আলোচিত নাম । এই কোম্পানিটি এমন একটি কোম্পানি যেখানে লঞ্চ হওয়ার আগেই লক্ষ লক্ষ মানুষ একাউন্ট খুলেছেন মজার বিষয় হচ্ছে অনেকে টাকা দিয়ে নিজের একাউন্টি ভেরিফাই করেছেন । 

যতটুকু জানা গেছে 18 থেকে 19 মাস যাবত এই কোম্পানিটি অনলাইনে এসেছেন বিভিন্ন কাজ তারা জনগণকে করে দিবে তার বিনিময়ে টাকা দিবে এই প্রতিশ্রুতি নিয়ে ।

কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে প্রতি জন মানুষ যারা আইডি ভেরিফাই করবে তাদেরকে এড দেখার বিনিময় প্রতিদিন 274 টাকা করে দেওয়া হবে । যেটা বাংলাদেশ টাকা রেট অনুযায়ী চলে আসে । আর যারা ফ্রিতে কাজ করবে ফ্রি একাউন্ট খুলে তাদেরকে প্রতিদিন 1 ইউরো সমান সমান অর্থাৎ 100 টাকা করে দেওয়া হবে ।

যা লাইফ স্টাইল আরো বলেছেন তার গ্রাহকদের জন্য তারা ই-কমাস ইনকাম সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আসবেন অর্থাৎ অ্যামাজন আলিএক্সপ্রেসের মতো তারা একটি ই-কমার্স সাইট আনবেন যেখান থেকে প্রোডাক্ট বেঁচে কিংবা কিনে ইনকাম করতে পারবে যে কেউ । 

কোম্পানিটি আরো বলেছেন বিট কয়েনের মতো তারা কিত্ত কারেন্সিও নিয়ে আসতে চলেছে । এ তো গেল কোম্পানির প্রতিশ্রুতির কথা বাস্তবে আসলে কি দেখা যাচ্ছে যে । কোম্পানির দুই বছরের কাছাকাছি সময় হয়ে গেছে এখনো লঞ্চ করতে পারেনি তারা কি আদৌ সেটাপ করতে পারবে ? এই প্রশ্নটা শুধু আমার না অনেকেই করে থাকেন বিভিন্ন সময়ে কমেন্ট বক্সে । অনেকে আবার বলে থাকেন কোম্পানিটি এত টাকা ইনকাম কিভাবে দিবে এত টাকা ইনকাম তো পূর্বে কোন কোম্পানিকে দিতে দেখিনি । তাহলে এই কোম্পানিটি কিভাবে দেবে ?

আজকে আপনাদের জানাতে চলেছি জা লাইফস্টাইল সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য যেগুলো পেলে আপনাদের হয়তো বা কিছুটা লাভ হবে ইনশাল্লাহ ।



Jaa LifeStyle কি ইনকাম দেওয়ার নামে প্রতারণা করতাছে ?




জা লাইফস্টাইল কি কোন বড় কোম্পানি ?


জা লাইফস্টাইল আসলে কোন বড় কোম্পানির আদলে তৈরি কিনা এটা এখনো জানা যায়নি । যেমন অনেক সময় ফেসবুক ইউটিউব কিংবা অন্যান্য বড় কোম্পানিগুলো অনেক ইনকাম ওয়েবসাইট বানিয়ে সার্ভিস দিয়ে থাকেন । যেমন গুগলের রয়েছে ইউটিউব ফেসবুকের রয়েছে বুলেটিন । তবে যতটুকু জানা গেছে যা লাইফ স্টাইল হচ্ছে নতুন একটি কোম্পানি যারা কিনা মার্কেটে হয়তোবা গুগোল ফেসবুকের মত জায়গা দখল করতে চাচ্ছে ।


জা লাইফস্টাইল এর নিজস্ব ওয়েবসাইট কি ইহা ?


জা লাইফস্টাইল যখন অনলাইনে চলে আসেন তার কিছুদিন পরে তারা বলছিলেন ইহা নামে একটি কোম্পানির সাথে তারা চুক্তি করতে চলেছেন । অর্থাৎ জা লাইফস্টাইল এ যারা একাউন্ট খুলবে তারা অ্যাড গুলো দেখতে হবে ইহা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে । সহজ ভাষায় বলতে গেলে জা লাইফস্টাইলের থেকে টাকা উঠানো যাবে ঠিকই । তবে অ্যাড গুলো দেখতে হবে ইহা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এড দেখে ইনকাম করতে হবে বা হয়ে থাকবে । সহজ ভাষায় বলা যায় যে যা লাইফ স্টাইল এর সাথে ইহা ওয়েবসাইটের একটি লিংক করে দেওয়া হবে এর মাধ্যমে একটি ওয়েবসাইটের ইনকাম আর একটি ওয়েবসাইটে টান্সফার করে দেওয়া হবে । এমনটাই প্রথমদিকে বলেছিলেন তারা । জা লাইফস্টাইল কোম্পানি প্রথমদিকে বলেছিলেন ইহা ওয়েবসাইট হচ্ছে থার্ড পার্টির ওয়েবসাইট । এখন আবার অনেকে বা লিডারদের মুখ থেকে শোনা যায় যা লাইফ স্টাইল এর নিজস্ব ওয়েবসাইট নাকি ইহা ওয়েবসাইট । এতক্ষণে হয়তো বা ধারন করতে পারছেন জা লাইফস্টাইল এর ইহা ওয়েবসাইটটি নিজস্ব কিনা । এখানে কিন্তু কনফিউজ রয়েছে । যাইহোক ইহা ওয়েবসাইট যা লাইফ স্টাইলের নিজস্ব হোক কিংবা থার্ড-পার্টির হোক সেটা কোন বিষয় না বিষয় হলো কোম্পানির কথা অনুযায়ী ঠিকঠাকমতো কাজের বিনিময় সকলে পেমেন্ট পায় কিনা ।


ইহা ওয়েবসাইট কি লঞ্চ করেছে ?


গতমাসে অর্থাৎ জুলাই মাসের 31 2021 তারিখে ইহা নামের যে ওয়েবসাইট রয়েছে সেটি লঞ্চ করেছে ঠিকই তবে এখনো ইনকাম দেওয়া শুরু করিনি । কবে থেকে ইহা ওয়েবসাইট থেকে এড দেখে পূর্ণাঙ্গভাবে ইনকাম হবে বা ইনকাম জমবে একাউন্টে এটাও কোন লিটার এখন পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে বলতে পারেননি ।


জা লাইফস্টাইল এর ইনকাম কেন ইহার ওয়েবসাইট থেকে দেবে ?


এক্ষেত্রে উদাহরণ হিসেবে বলা যায় ইউটিউব এডসেন্স এর কথা অর্থাৎ ইউটিউব থেকে যে টাকাটা ইনকাম হয় বা ডলার ইনকাম হয় সেটা কিন্তু যোগ হয় এডসেন্স এর ভেতরে এবং এডসেন্স এর সাথে যখন ব্যাংক একাউন্ট এড করে দেওয়া হয় তখন কিন্তু অ্যাডসেন্স থেকে পেমেন্ট পাওয়া যায় । হয়তোবা কোম্পানি এরকম কিছু করতে চাচ্ছেন ।


জা লাইফস্টাইল কি ইহার মাধ্যমে ইনকাম দিবে নাাকি  ফাও কাজ করি নিবে ?



এই বিষয় অনেকেই কিন্তু কনফিউজ রয়েছেন অর্থাৎ অনেকদিন হয়ে গেল জা লাইফস্টাইল শুধু টাকা ইনকাম দিবে দেখিয়ে যাচ্ছেন সকলকে । জা লাইফস্টাইল এর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে বিভিন্ন এড গুলো ঠিকঠাক মতো যাতে করে সবাই দেখতে পারেন সেজন্য জা লাইফস্টাইল পাটনার ওয়েবসাইট ইহা ওয়েবসাইটে এড গুলো লোড করা হচ্ছে । সেগুলো ভিউয়ারদের পরীক্ষামুলকভাবে দেখানো হচ্ছে ও সমস্যা থাকলে সেগুলো সমাধান করা হচ্ছে । এটাতো গেল কোম্পানির বক্তব্য । যদিও জা লাইফস্টাইলের অনেক গ্রাহকগণই বলে থাকেন জা লাইফস্টাইল কখনো লঞ্চ করবে না তারা শুধু ফ্রিতে কাজ করিয়ে নিবে । কথাটি খুব একটা মিছা না কারণ আমার ব্যক্তিগতভাবে মনে হয় ফিফটি ফিফটি পার্সেন্ট অর্থাৎ জা লাইফস্টাইল শেষ পর্যন্ত লঞ্চ করতেও পারে কিংবা চলেও যেতে পারে । তবে এটা বলে রাখা ভালো আমি ব্যক্তিগতভাবে এটা কখনো চাই না যে যা লাইফ স্টাইল কোম্পানি চলে যাক । আমি সবসময় আল্লায় দিলে চাই জা লাইফস্টাইল একটি ভালো কিছু করুক যাতে করে অনেকে টাকা ইনকাম করতে পারে ।


জা লাইফস্টাইল এর লঞ্চ করার সম্ভাবনা আছে কি ?


জা লাইফস্টাইল এর অফিশিয়াল ভাবে যেই জুম মিটিং করা হয় সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার সেখানে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন লিডার গণ বলে থাকেন এই মাসে লঞ্চ করবে ওই মাসে লঞ্চ করবে কিন্তু সেটা কিন্তু হচ্ছে না । তবে এটাও ঠিক জা লাইফস্টাইল অফিশিয়াল ভাবে কিন্তু এরকম কোন সময় এখনও বেঁধে দেননি । জা লাইফস্টাইল শুধু বলতেছেন ওই টার পর এইটা, এইটার পর ওইটা করতে হবে বা গ্রাহকদের দিয়ে করিয়ে নিচ্ছেন কাজগুলো অর্থাৎ একের পর এক স্টেপ বাই স্টেপ কাজগুলো তারা দিয়ে যাচ্ছেন । কিন্তু কোম্পানিটি যে কবে লঞ্চ করবে সেটি কিন্তু নির্দিষ্ট করে এখনো জা লাইফস্টাইল অফিশিয়াল ভাবে কিছু বলেনি । এই জন্য এখনও বোঝা যাচ্ছে না আসলে জা লাইফস্টাইল শুধুমাত্র ফ্রী মেম্বারদের আইডিগুলো একটিভ করানোর জন্য এই নাটক করতেছে নাকি তারা সত্যিই অনলাইনে একটি চমক নিয়ে আসতে চলেছে । এটি এখন প্রায় সবারই কিন্তু মনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে । যেহেতু কোম্পানির থেকে নির্দিষ্ট করে কোন তারিখ দেওয়া হচ্ছে না কবে থেকে তারা ইনকাম দেওয়া শুরু করবে । আবার অন্যদিকে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন লিডার গণ উল্টাপাল্টা তথ্য দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করতেছে । সত্যি কথা বলতে কি এখনো সঠিকভাবে জানা যায়নি যা লাইফ সইল আসলে কবে থেকে টাকা ইনকাম দেওয়া শুরু করবে ।


জা লাইফস্টাইল ইনকাম দেওয়া শুরু করলে কিভাবে বুঝবো ?


আসলে সূর্য যখন উঠে যায় তখন কাউকে জিজ্ঞেস করতে হয় না আল্লায় দিলে সাধারণ জ্ঞান থেকেই বোঝা যায় যে সকাল হয়েছে । জা লাইফস্টাইল টাকা ইনকাম দেওয়া শুরু করলে আপনার একাউন্টে অটোমেটিক টাকা জমতে থাকবে কিংবা আপনি যদি সংবাদ পেতে চান যে যা লাইফ স্টাইলএর কখন কোন আপডেট নিউজ আসছে । তাহলে যা লাইফ স্টাইল এর একাউন্টে লগইন করার পরে নিউজলেটার সবসময় খেয়াল রাখতে হবে । কারণ যা লাইফ স্টাইলে যখন যে আপডেট চলে আসে সেগুলো ওই নিউজলেটারে দিয়ে দেওয়া হয় ।

তবে আপনাদের একটি কথা আল্লায় দিলে বলে রাখি কথায় বলে পুরান চাল ভাতে বলে । অন্যদিকে এটিও মাথায় রাখতে হবে বেশি পুরান চালে পোকায় ধরে ।

আশা করি এই কথাটি থেকে অনেকে অনেককিছু আল্লায় দিলে অনুমান করতে পারছেন । আপনারা চাইলে আপনাদের মতামত কমেন্ট করে জানাতে পারেন

জা লাইফস্টাইল এ একাউন্ট খোলার জন্য এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত দেখে নিন ।




Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন

Ads

Ads